Saturday, 21 Apr 2018

লেইচেষ্টারের রাজকীয় উল্লাস

এটা অনুমেয় ছিলো, উল্লাসটা হবে রাজকীয়। জ্যামি ভার্ডির বাসায় একপ্রস্থ হয়েছে কিন্তু সবাই নিশ্চিতভাবে অপেক্ষা করছিলো কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে সমর্থকদের সাথে হারিয়ে যাবার জন্য। হয়েছেও তাই, ম্যাচ জিতেই উল্লাস পর্বটা সেরে নিলো প্রিমিয়ার লীগের নতুন জায়ান্ট লেইচেষ্টার সিটি।

ক্লাদিও রেনিয়েরি যখন ট্রফি হাতে সংবাদ সম্মেলনে  প্রবেশ করলেন তখন তাঁকে দেখাচ্ছিলো অসম্ভব রকম শান্ত, সম্ভবত শান্ত ভাবেই প্রকাশ করতে চাচ্ছিলেন এই ট্রফিটা তাঁর লেইচেষ্টারের জন্য আসলে কি প্রকাশ করে।

রেনিয়েরি যখন কথা বলছিলেন তাঁর নতুন রাইট ব্যাক কেনার প্রসঙ্গে, তাঁর গোলরক্ষক আর তাঁর বাবা পিটার স্মাইকেল সম্পর্কে বলছিলেন পেছন থেকে এসে ফাচ শ্যাম্পেইন দিয়ে ভেজালেন রেনিয়েরিকে। মজার লোক রেনিয়েরি পরের দিনের ট্রেনিং এর কথা মনে করিয়ে দিলেন সাথে সাথেই।

রেনিয়েরি বলেন- “এটা চমৎকার অনুভূতি, আমি শক্ত হতে চেষ্টা করছি, আবেগটাকে পাশে রেখে”

সাথে সাথেই যোগ করেন- “আমি একটা আজব মানুষ, কিন্তু আমার ভেতরের আবেগটা আকাশচুম্বী।”

নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম লীগ জয় নিয়ে বলেন – ” আমার ক্যারিয়ার নিয়ে আমি সব সময় ভাবতাম আগে কিংবা পরে আমি লীগ টাইটেল জিতবোই, কিন্তু সেটা এখানে হবে সেটা ভাবিনি। এটা মাত্র শুরু, একটা নতুন যাত্রা। পাগলাটে একটা মৌসুম ছিলো “

কোচের মত করে উল্লসিত খেলোয়াড়রা ও। পিকার স্মাইকেল এর ছেলে, আরেক স্মাইকেল। বাবা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কিংবদন্তী গোলরক্ষক; অজস্র গোলরক্ষকের আদর্শ, তাঁর ছেলেও এখন লীগ জয়ী এবং গোলরক্ষক হিসেবেই।

জুনিয়র স্মাইকেল বলেন- ” আমি বিশ্বাস করতে পারছিনা আমরা এখানে দাঁড়িয়ে আছি, এটা সত্যিকার অর্থেই অসাধারণ।  “

https://youtu.be/7ESvCG7AB9U

ড্যানি সিম্পসন আরেকটু আবেগী হয়ে – ” আমি শব্দ খুঁজে পাচ্ছিনা বলার জন্য। আমরা আমাদের স্বপ্ন পূরণ করে ফেলেছি। আমি আবেগী হয়ে পড়েছি, উই হ্যাভ ডান ইট । “

লেইচেষ্টার সিটি ডিড ইট!

আরো পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *