Sunday, 24 Jun 2018

রোনালদো ঝড়ে বিধ্বস্ত জুভেন্টাস

রোনালদো

১৯৬২ সালের ফেব্রুয়ারীতে শেষ জুভেন্টাসের বিপক্ষে ম্যাচ জিতেছিলো অল হোয়াইটরা। তারপর এতোগুলো বছরে তুরিনের বুড়িদের সাথে লস ব্লাঙ্কোসদের দেখা হয়েছে সাতবার, এক ড্র আর ছয় হারের বিপরীতে জয় আসেনি। অবশেষে জয় এসেছে, চ্যাম্পিয়নস লীগে অপ্রতিরোধ্য রিয়াল মাদ্রিদ জিতেছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর স্মরণীয় এক দিনে।

চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ আটের প্রথম লেগে তুরিনে ০-৩ গোলের দারুন এক জয় পেয়েছে জিদানের শিষ্যরা। সেমিফাইনালের পথ অনেকটাই পরিস্কার করে এসেছে তুরিনেই। মাদ্রিদ পর্ব বাকী রেখেই সেমি ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে রিয়াল মাদ্রিদ। তবে এই ম্যাচ ইতিহাস মনে রাখবে অন্য কারণে। জুভেন্টাসের এতো বছর পর রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরে যাওয়া, ঘরের মাঠে জুভেন্টাসের অসহায় আত্বসমর্পন ছাড়িয়ে এই ম্যাচের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পর্তুগালের অন্য গ্রহের ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

তিন মিনিটের মাথায় ইস্কোর ক্রস থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন রোনালদো। তারপর জুভেন্টাস ক্ষানিকটা সময়েই ম্যাচে ছিলো। দুই একটা আক্রমন করলেও গুছিয়ে উঠতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধে দিবালার ফ্রি কিক ক্রস বারে লেগে ফিরে আসার মতো দুই একটি ঘটনা ছাপিয়ে গিয়েছে ৬৪ মিনিটে রোনালদোর দুর্দান্ত এক বাই সাইকেল কিকে। শুন্য থেকে প্রায় ছয় ফিট উপরে থাকা বলটিকে জালে পাঠাতে রোনালদো হেডের আশ্রয় নেবেন এমনটাই ভেবেছিলো জুভ ডিফেন্স। মুহুর্তে ধনুকের মতো বেঁকে প্রায় ছয় ফিট উপরে উঠে দুর্দান্ত এক গোল করলেন রোনালদো। রিয়াল মাদ্রিদ লিড নিলো ২-০ গোলের। এমন গোল এর আগে দেখা গিয়েছিলো সুইডিশ সুপারস্টার ইব্রাহিমোভিচের পা থেকে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আরো অনেক দূর থেকে দারুণ এক গোল করেছিলেন। রোনালদোর অসাধারণ গোল ইব্রাহিমোভিচের সেই গোলের কথাই মনে করিয়ে দেয়।

রোনালদো আপ্লুত হয়েছেন প্রতিপক্ষ দর্শকের দাঁড়িয়ে দারূন এই গোলের জন্য তালি দেয়াতেও।

 তুরিনের দর্শকের ভালোবাসার জবাব দিচ্ছেন রোনালদো
তুরিনের দর্শকের ভালোবাসার জবাব দিচ্ছেন রোনালদো

ক্ষানিক বাদেই দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন জুভেন্টাসের নাম্বার টেন দিবালা। রোনালদোর গোলের মুগ্ধতার আড়ালে ছাপিয়ে গেছে দিবালার কার্ড বিতর্ক। না হয়, প্রথম হলুদ কার্ড কতোটা যৌক্তিক ছিলো সে বিতর্ক হতেই পারতো।

পরে, মার্সেলোর গোলে রিয়াল মাদ্রিদ ৩ এওয়্যে গোলের লিড নিলে তখনো সবাই বুদ হয়ে আছে রোনালদোর গোলেই। এই ম্যাচ তো রোনালদোরই।

অন্য ম্যাচে সেভিয়াতে ১-২ গোলে জয় পেয়েছে জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ণ মিউনিখ।

আরো পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *