Sunday, 24 Jun 2018

রিয়াল মাদ্রিদের টানা তৃতীয় নাকি লিভারপুলের ইতিহাসের ষষ্ঠ চ্যাম্পিয়নস লিগ?

পুরো ফুটবল বিশ্বের চোখ থাকছে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে। এনএসসি অলিম্পিয়েকেস স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হচ্ছে দুই ঐতিহ্যবাহী ফুটবল ক্লাব, স্পেনিশ পরাশক্তি রিয়াল মাদ্রিদ আর অন্যদিকে ইংলিশ পরাশক্তি লিভারপুল। ২৬ তম চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল।

স্পেনে ব্যর্থ এক মৌসুম কাটানো জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ তাকিয়ে আছে তাদের ১৩ তম চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপার দিকে। হাতছানি দিয়ে ডাকছে টানা তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতে নেয়ার এক দুর্লভ রেকর্ড। এইজন্য লস ব্লাঙ্কোসদের সামনে বাধা জার্গেন ক্লপের ফ্রি ফ্লোয়িং, স্কোরিং , হেভিমেটাল লিভারপুল। লিভারপুল ইউক্রেনে পা রেখেছে তাদের ইতিহাসের ৬ষ্ট চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জিততে। এই ম্যাচে পরিস্কার ভাবেই রিয়াল মাদ্রিদ ফেভারিট, লিভারপুল কিছুটা আন্ডারডগ হয়েই মাঠে নামছে। যেটা সম্ভবত লিভারপুল ও চায়।

 

সাম্প্রতিক ফর্ম


রিয়াল মাদ্রিদের সাম্প্রতিক ফর্ম তাদের ঘরোয়া কম্পিটিশনে এই মৌসুমে যথেষ্ট অধারাবাহিক। লা লিগায় নিজেদের শেষ ম্যাচে ভিয়ারিয়ালের কাছে ২ গোল হজম করে জয়হীন অবস্থায় মাঠ ছেড়েছে। ফাইনালে আসার আগে নিজেদের শেষ পাচ ম্যাচে একটিতেই জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু চ্যাম্পিয়নস লিগে আসলেই রিয়াল মাদ্রিদ এক অন্য দল এই কথা ভুলে যাবার কোন উপায় নেই।

অন্যদিকে সেমি ফাইনালে রোমা বাধা অতিক্রম করার পর থেকেই লিভারপুল তাকিয়ে আছে কিয়েভের দিকেই। নিজেদের শেষ ছয় ম্যাচে জয় পেয়েছে দুটি। তবে এর ভিতরেই লিভারপুলের অর্জন ও কম নয়। নিজেদের শেষ প্রিমিয়ার লিগ  ম্যাচে জয় ছিনিয়ে নিয়ে ইতিমধ্যে পরের চ্যাম্পিয়নস লিগ ট্রফিতে খেলার টিকেট হাতে নিয়ে রেখেছে। তুরুপের তাস মোহাম্মদ সালাহ ও গোলে ফিরেছেন, রেকর্ড করেই জিতে নিয়েছেন প্রিমিয়ার লিগের গোল্ডেন বুট।

অতীত সাক্ষাৎ


রিয়াল মাদ্রিদ ১- লিভারপুল ০ , নভেম্বর ২০১৪

এই ম্যাচটি মনে থাকবে তৎকালীন লিভারপুল ম্যানেজার ব্রেন্ডন রজার্সের স্টিভেন জেরার্ড, রহিম স্টার্লিং আর ফিলিপে কৌতিনহোদের বার্নাবুর সাইড বেঞ্চে বসিয়ে রাখার জন্য। সেই ম্যাচে করিম বেনজেমার একমাত্র গোলে ম্যাচ জিতেছিলো রিয়াল মাদ্রিদ। ফিরতি লেগেও রিয়াল মাদ্রিদ লিভারপুলকে রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েই প্রথম পর্ব শেষ করেছিলো।

টিম নিউজ


রিয়াল মাদ্রিদ এই ম্যাচের জন্য জিনেদিন জিদানের হাতে তুলে দিতে পারছে পুরো স্কোয়াডই। কারভাহাল ফিরছেন স্কোয়াডে, বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষের সেমি ফাইনাল তিনি মিস করেছিলেন। গতিদানব গ্যারেথ বেল ও ফিরছেন মহারণ সামনে রেখে। যদিও বেল এই মৌসুমে কেবল তিনটি চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচেই মাঠে নেমেছিলেন, তবে যখনই নেমেছেন নিজের জাত চিনিয়েছিলেন। জিদানের জন্য দারুন এক অস্ত্র হতে পারে এই ওয়েলস ম্যান। ছোট্ট  চোট কাটিয়ে, ছুটি কাটিয়ে ফুরফুরে মেজাজেই মাঠে নামছেন রিয়াল মাদ্রিদের বিজ্ঞাপন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

অন্যদিকে ইনজুরি জর্জরিত লিভারপুল দারুন কিছু খবর পেয়ে গেছে। এমরি ক্যান আর মিলনার ফিরছেন ইনজুরি কাটিয়ে, ফাইনালে খেলার ভালো সম্ভাবনা রয়েছে দুইজনেরই। যা ক্লপের দলকে আরো ব্যালেন্সড করে তুলতে সাহায্য করবে নিঃসন্দেহে।

প্রেডিকশনঃ রিয়াল মাদ্রিদ ৩ – লিভারপুল ১

 

আরো পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *